In Corona, 1,054 teachers are getting Tk 40 crore from the welfare trust

করোনার মধ্যেই ১০৫৪ জন শিক্ষক পাচ্ছেন কল্যাণ ট্রাস্টের ৪০ কোটি টাকা

 
করোনার মধ্যেই ১০৫৪ জন শিক্ষক পাচ্ছেন কল্যাণ ট্রাস্টের ৪০ কোটি টাকা

Due to the outbreak of the novel coronavirus, the country has been on a public holiday since March 26. All public and private offices are closed. Among them, the Private Teachers Employees Welfare Trust set an example by waiving about Tk 40 crore for the welfare of 1,054 retired private teachers. Trust Secretary Principal. Shahjahan Alam told Saju Kaler Kanth that Tk 398 million has been released for the welfare of 1,054 teachers and staff in the welfare trust. Retired in the midst of this catastrophe of the nation

LIKE OUR FACEBOOK PAGE

নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে গত ২৬ মার্চ থেকে দেশে সাধারণ ছুটি চলছে। সরকারি-বেসরকারি সব অফিস বন্ধ রয়েছে। এর মধ্যে অবসরপ্রাপ্ত এক হাজার ৫৪ জন বেসরকারি শিক্ষকের কল্যাণ সুবিধার প্রায় ৪০ কোটি টাকা ছাড় করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট।

ট্রাস্টের সচিব অধ্যক্ষ মো. শাহজাহান আলম সাজু কালের কণ্ঠকে বলেন, কল্যাণ ট্রাস্টে ১০৫৪ জন শিক্ষক কর্মচারীর কল্যাণ সুবিধা বাবদ ৩৯ কোটি ৬৬ লাখ টাকা ছাড় করা হয়েছে। জাতির এই মহাদুর্যোগের মধ্যেও অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক কর্মচারীদের দুরাবস্থার কথা বিবেচনা করে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনির উৎসাহে এই টাকা ছাড় করা সম্ভব হয়েছে। এছাড়া এই কাজের পেছনে কল্যাণ ট্রাস্টের কর্মকর্তা কর্মচারীদের দুঃসাহসিক পরিশ্রম রয়েছে। ঈদের আগেই শিক্ষকদের যার যার ব্যাংক একাউন্টে টাকা জমা হয়ে যাবে।

নিয়মিত চাকরির আপডেট পেতে আমাদের গ্রুপে জয়েন করুন

জানা যায়, আজ বুধবার কল্যাণ ট্রাস্টের সচিব এই চেকে স্বাক্ষর করেন। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের স্বাক্ষর শেষে কাল বৃহস্পতিবার চেক ব্যাংকে জমা হবে। ঈদের আগেই অনলাইনে বিএফটিএন এর মাধ্যমে শিক্ষকদের যার যার একাউন্টে টাকা জমা হয়ে যাবে। ২০১৮ সালের মে মাসে যারা কল্যাণ সুবিধার জন্য আবেদন জমা দিয়েছিল তারা এই দুঃসময়ে টাকা পাচ্ছেন।

অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকরা জানান, কল্যাণ ট্রাস্টের টাকার জন্য তাদের খুব বেশিদিন দেরি করতে না হলেও অবসর সুবিধা বোর্ডের টাকার জন্য বছরের পর বছর ঘুরতে হয়। এমনকি শিক্ষকদের সঙ্গে ভালো ব্যবহারও করা হয় না। করোনার মধ্যে কল্যান ট্রাস্ট যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো অবসর বোর্ড থেকে সেই ধরনের কোনো উদ্যোগও নেই।

Check Also

In the second phase, 10 more pairs of trains were launched

দ্বিতীয় ধাপে আরো ১০ জোড়া ট্রেন চালু     Join our Facebook Group

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *