887 new corona patients identified in Bangladesh, death 14 (video live)

Corona virus has been detected in 6 more people in Bangladesh in the last 24 hours. And 14 people have died in the last 24 hours. 313 people have recovered. A total of 2,414 people returned home after recovering.

LIKE OUR FACEBOOK PAGE

বাংলাদেশে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৮৮৭  জনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এবং গত ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন ১৪ জন।  সুস্থ হয়েছেন ৩১৩ জন। এনিয়ে মোট সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২,৪১৪ জন।

এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১৪৬৫৭। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৪ মৃত্যুর মধ্য দিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২২৮ জনে।

করোনা ভাইরাস নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন সংবাদ বুলেটিনে রবিবার (১০ মে) দুপুরে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

অনলাইন বুলেটিনে বলা হয়, ৩৬টি ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫,৭৩৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়

এর আগে গতকাল  (৯ মে) দুপুরে করোনা ভাইরাস নিয়ে নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে  জানান, ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৬৩৬ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও ৮ জন।

ডিসেম্বরে প্রাদুর্ভাব শুরুর পর থেকে বেশিরভাগ দেশই ভাইরাসটিতে তেমন পাত্তা দেয়নি। অনেক দেশই ধারণা করেছিল, এটি চীনা ভাইরাস এবং এর সংক্রমণ হয়তো ইউরোপ-আমেরিকায় ছড়িয়ে পড়বে না। এজন্য সেখানকার দেশগুলো তেমন কোনো পদক্ষেপও নেয়নি। ফলও দিতে হচ্ছে তাদের। কারণ সংক্রমণ সংখ্যার দিক থেকে প্রথম দেশগুলোর তালিকার মাঝেই নেই চীন।

বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা ভাইরাসের রোগী শনাক্ত হলেও প্রথম মৃত্যুর খবর আসে ১৮ মার্চ। দিন দিন করোনা রোগী শনাক্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ায় নড়েচড়ে বসে সরকার। ভাইরাসটি যেন ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য ২৬ মার্চ থেকে বন্ধ ঘোষণা করা হয় সব সরকারি-বেসরকারি অফিস। কয়েক দফা বাড়ানো হয় সেই ছুটি, যা এখনও অব্যাহত আছে। পঞ্চম দফায় সেই ছুটি বাড়ানো হয় ৫ মে পর্যন্ত। তার আগেই আরেক দফা ছুটি বাড়িয়ে ১৬ মে পর্যন্ত করা হয়।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। শনাক্ত হওয়ার পর থেকেই দেশে সংক্রমণ রোধে নানা প্রদক্ষেপ গ্রহণ করছে সরকার।

করোনা ভাইরাসের সর্বশেষ পরিস্থিতি সরাসরিঃ করোনাভাইরাস (COVID-19) এর সর্বশেষ পরিস্থিতি।

Check Also

Government has not taken any decision to hold HSC exams’

HSC and equivalent examinations were supposed to start from April 1. Due to the Corona …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *